1. info@banglanewstelevision.live : bangla news television : bangla news television
  2. doinikajkerunmocon@gmail.com : Emon Khan : Emon Khan
  3. admin@www.banglanewstelevision.live : বাংলা নিউজ টেলিভিশন :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:১৫ অপরাহ্ন

কাপ্তাইয়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাত হোসেন এর “শখ বাগান” – যেখানে রয়েছে শতাধিক দেশি-বিদেশি গাছ।

বাংলা নিউজ টেলিভিশন-
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৩৩ বার পড়া হয়েছে

দিলীপ কুমার দাস রিপোর্টার- নিজ বাড়িতে তৈরি করা শখের বাগানে বেশ ভালো সময় পার করছেন কাপ্তাই উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী। সম্প্রতি ওই বাগানে গিয়ে দেখা যায়, বাড়ির সামনে মনোরম পরিবেশে শখের বাগান তৈরি করেছেন তিনি। যেই বাগানে রয়েছে শতাধিক ফলজ, বনজ, ঔষধি সহ হারেক রকমের ফুলের গাছের চারা। যেখানে ইতিমধ্যে দেশী বিদেশী ফল, ফুল সহ বিভিন্ন গাছের দেখা মিলেছে। সেইসাথে সাথে দেশীয় ফল-ফুলের সমাহার তো আছেই।

বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাত হোসেন চৌধুরী জানান, ছোটবেলা থেকেই পিতার আদর্শ নিয়ে বাগান করার প্রতি অন্যরকম ভালো লাগা কাজ করে। ছাত্রজীবনে তিনি পিতার সাথে বাগান পরিচর্যায় ভালো সময় পার করেছেন। পরবর্তীতে ১৯৯৫ সালে যখন তিনি কাপ্তাই চন্দ্রঘোনাস্থ মিতিংগাছড়ি এলাকায় বাড়ি তৈরির কাজ শুরু করেন, তখনই বাড়ির সামনের খালি জায়গাটিতে বাগান করার চিন্তা করেন। তৎকালীন সময়ে তিনি কিছু গাছের চারা সংগ্রহ করে রোপণ করলেও বর্তমানে এই বাগানে দেশী-বিদেশী শতাধিক গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে। এবং ইতিমধ্যে সেইসব গাছে অনেক সুন্দর সুন্দর ফুল ও ফলের দেখা মিলেছে।

এ বিষয়ে আলাপ কালে তিনি আরো জানান, শখের বাগানটিতে প্রায় ৭৫ রকমের ফুল গাছ রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো পলাশ, মহুয়া, নাগ লিঙ্গম, কামিনি, টগর, রাজ মুকুট, নীল পারুল, বাগান বিলাস, কাঠগোলাপ, অলকানন্দা, বেলী, গোলাপ, রোজ কেকটাস, কাঁঠালি চাপা, গন্ধরাজ, চেরী, সন্ধামালতি, রক্ত কবরী, মাধবী লতা, শিবজটা, হাসনাহেনা, সহ বিভিন্ন নামের দেশীয় ফুল গাছের সমাহার। পাশাপাশি রয়েছে বিদেশী জাতের রেট লাইয়ন লিলি, ফায়ার বল লিলি, লাকি বেম্বো ফুল, ড্রেসিনা ফুল, রেইন লিলি, জাগুস লিলি, নাইট কুইন, এরোমেটিক জুঁই সহ বিভিন্ন ফুল। তবে এখানে কিছু কিছু ফুলের বৈশিষ্ট্য হল কিছু ফুল ফোটে গভীর রাতে, আবার মর্নিং গ্লোরি নামে একটি ফুল ভোর রাতে ফোটার পর সূর্যের আলোর তেজ পড়তেই চুপসে পড়ে যায়। এছাড়া এই বাগানের জায়ান্ট লিলি নামক ফুলটির চারা লাগানোর দীর্ঘ ১২ বছর পর ওই ফুলের দেখা মিলেছে। তাছাড়া কাপ্তাইয়ে সম্ভবত থাইপদ্ম নামক ফুলটি প্রথম এই বাগানেই দেখা মিলেছে বলে তিনি জানান।

শুধু তাই নয়, এই বাগানে রয়েছে দেশী-বিদেশী হারেক রকমের ফল। রয়েছে ৭ রকমের লেবু গাছ। যার মধ্যে কাগজী লেবু, সিটলেস লেবু, সাউথ আফ্রিকান লেমন, ইন্ডিয়ান কট লেবু, সাতকড়া লেবু, বাতাবী লেবু, এলাচী লেবু, সুইট লেমন, চায়না কমলা উল্লেখযোগ্য।

দেশী-বিদেশী ফলের মধ্যে রয়েছে, করোমচা, পেয়ালা, গোলাম জাম, গুটি জাম, দেশী জাম, লটকন, বিলম্ব, পিছফল, বার্বা ডোজ চেরী, স্ট্রবেরী পেয়ারা, থাই পেয়ারা, মিষ্টি তেঁতুল, দুই রকম বেল, সাদা এবং লাল জাম্বুরা, কাঞ্চন নগরের পেয়ারা, ৪ রকমের জামরুল, বরিশালের আমড়া ঢেউয়া, কাউ ফল, কাট বাদাম সহ বিভিন্ন নামের জাতের ফল গাছের সমাহার। রয়েছে বিভিন্ন দেশী-বিদেশী মসলা গাছ। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কারি পাতা, লবঙ্গ, দারচিনি, তেজপাতা, এলাচ, গোল মরিচ সহ হারেক রকম মসল্লার গাছ। অপরদিকে সৌন্দর্য্য বর্ধনের বিভিন্ন পাতাবাহার গাছ তো আছেই। এই বাগানে আরো রয়েছে বনজ ও ঔষধি গাছ, যেমন:- অ্যালোভেরা, তুলসি, পাথরকুচি, বাসক, অর্জুন, ডায়বেটিস পাতা ইত্যাদি। এই বাগানে
পান্ত পথন নামের একটি গাছ আছে যেটি সাধারনত মরুভূমি অঞ্চলে বেশী দেখা যায় বলে তিনি জানান।

গাছ সংগ্রহের বিষয়ে তিনি বলেন, এই শখের বাগানের জন্য অনেক দুর দুরান্ত থেকে গাছের চারা সংগ্রহ করা হয়েছে। এই বাগানে দিনাজপুর, রাজশাহী, যশোর, রংপুর, বগুড়া, ময়মনসিংহ, ঢাকা, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, হাটহাজারি, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, রাইখালী কৃষি ফার্ম সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গাছের চারা সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে, বাগানের লিলিয়াম ফুল গাছের বাল্বটি তিনি সুদূর লন্ডন থেকে ৩ বছর পূর্বে উপহারের মাধ্যমে সংগ্রহ করেছেন বলে জানান। এছাড়া অনলাইনের মাধ্যমেও তিনি বেশ কিছু গাছের চারা গাছ ক্রয় করেছেন। এই বাগানে গাছের চারা, উৎপাদিত ফুল- ফল তিনি দেশ-বিদেশের বিভিন্ন এলাকায় পাঠিয়েছেন।

গাছের পরিচর্যার বিষয়ে তিনি বলেন, দীর্ঘ কয়েক বছর তিনি প্রতিদিন ভোরে বাগানের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করেন। বিশেষ করে অবসর সময়টি তিনি প্রায় এই বাগানেই সময় দেন। বাগান পরিচর্যায় আরো সহযোগীতা করেন তাঁর সহধর্মিনী অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা মেহবুব আরা আক্তার এবং ছোট ছেলে প্রকৌশলী আদেল হোসেন চৌধুরী। এছাড়া গাছ পরিচর্যার পাশাপাশি নিয়মিত গাছে পানি দেওয়া নিত্য দিনের কাজ বলে তিনি জানান।

সবশেষে তিনি বলেন, প্রকৃতিকে ভালোবাসতে হবে। অনেকেই অবসর সময়টি বিভিন্ন কাজে নিয়োজিত থাকে, তবে ওই সময়টি যদি এইভাবে শখের বাগান তৈরিতে ব্যয় করা যায় তবে শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© বাংলা নিউজ টেলিভিশন মিডিয়া লিমিটেড-২০২২ (দৈনিক বাংলার সংগ্রাম পত্রিকার একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট