1. info@banglanewstelevision.live : bangla news television : bangla news television
  2. doinikajkerunmocon@gmail.com : Emon Khan : Emon Khan
  3. admin@www.banglanewstelevision.live : বাংলা নিউজ টেলিভিশন :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:০৮ অপরাহ্ন

যশোরে ১ম দিনে ১৫ ও ৩০ টাকা কেজির চাল কিনেছেন ১৭ হাজার ৪ ”শ’ জন।

প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

উৎপল ঘোষ, রিপোর্টার- যশোর জেলায় শুরু হয়েছে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১৫ টাকা কেজি ও ৩০ টাকার ও এমএস এর চাল বিক্রি কার্যক্রম। প্রথম দিন চাল কিনেছেন ১৭ হাজার ৪শ উপকার ভোগী। এর মধ্যে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ৩ হাজার উপকার ভোগী কিনেছেন ১৫ টাকা কেজি চাল। একই দিন ওএমএস ডিলারের কাছ থেকে ৩০ টাকা কেজি দামে চাল কিনেছেন ১৪ হাজার ৪শ’ জন। তবে ওএমএস এর ৩০ টাকা কেজি দামে চাল কেনার ক্ষেত্রে টিসিবির কার্ড ধারীদের অগ্রাধিকার ছিল।

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অধিদপ্তর সূত্র জানায়, সরকার নিম্ন আয়ের অসহায় মানুষের কথা ভেবে ইউনিয়ন পর্যায়ে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি চালু করেছে। এতে করে উপকার ভোগীরা ১৫ টাকা কেজি দরে ব্যক্তি প্রতি ৩০ কেজি করে চাল কিনেছেন। ইউনিয়ন কমিটির করা অনলাইনের তালিকার সাথে উপকার ভোগীদের জাতীয় পরিচয়পত্র মিলিয়ে চাল বিক্রি করা হয়েছে।

উদ্বোধনী দিনে ৮ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ৯০ মেট্রিকটন চাল বিক্রি করা হয়েছে ৩ হাজার উপকার ভোগীর মাঝে। এ চাল পেয়ে দরিদ্র ও অসহায় উপকার ভোগীদের মুখে যেন হাসি ফুটে ওঠে। সদরের বিরামপুর এলাকার বাসিন্দা হাসিনা জানান, ১০ বছর আগে তার স্বামী মারা গেছে। তারপর থেকে কাপড় সেলাইয়ের কাজ করে সংসার চালাচ্ছিলাম। ১৫ টাকা কেজি দরে চাল পেয়ে আমার উপকারই হলো। একই এলাকার রিক্সা চালক গোবিন্দ জানান, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি হওয়ায় সংসার চালানো কষ্টকর হয়ে পড়েছিল। রিক্সা চালিয়ে সংসার চালানো কষ্ট ছিল। ১৫ টাকা কেজি দামে চাল পাওয়ায় অনেক উপকার হল।

একই দিন জেলার আট পৌরসভায় ওএমএসএর চাল বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধনের প্রথম দিন ৪০জন ডিলার বিক্রি করেছে ৭২ মেট্রিকটন চাল। এ চাল কিনেছে ১৪ হাজার ৪শ’ জন নি¤œ আয়ের মানুষ। যাদের টিসিবির কার্ড ছিল তাদের এ চাল কেনায় অগ্রাধিকার দেয়া হয়। সরকারি ছুটিরদিন বাদে অন্যদিন চাল বিক্রি চলবে।

সকাল ৯টায় সদরের নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে প্রধান অতিথি হিসেবে ১৫ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান। তিনি বলেন সরকার নি¤œ আয় ও অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে এ কার্যক্রম চালু করেছে। যারা চালের সুবিধা ছাড়া ভিজিডিসহ অন্য সুবিধা ভোগ করছেন তারা খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির সুবিধা পাবেন না। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্য বেড়ে যাওয়া সরকার টিসিবির ন্যায্য মূল্যে তেল, চিনি,ডাল ও পেয়য়াজের সহায়তা দিয়েছেন। নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর তুহিনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের গবেষণা পরিচালক মাহাবুবুর রহমান, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নিত্যানন্দ কুন্ডু, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল হাসান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনুপ দাশ, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ। সকাল ১০টায় মুজিব সড়কে জাগরণী চক্রের সামনে ডিলার লাইজুজামানের ওএমএস এর চাল বিক্রির কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© বাংলা নিউজ টেলিভিশন মিডিয়া লিমিটেড-২০২২ (দৈনিক বাংলার সংগ্রাম পত্রিকার একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট