1. info@banglanewstelevision.live : bangla news television : bangla news television
  2. doinikajkerunmocon@gmail.com : Emon Khan : Emon Khan
  3. admin@www.banglanewstelevision.live : বাংলা নিউজ টেলিভিশন :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫১ পূর্বাহ্ন

ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন ডিএফও,ইসলামপুর বন্য হাতির আতঙ্কে ঘুম নেই এলাকাবাসী।

মোঃ সুমন,বিশেষ প্রতিনিধি-
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০২২
  • ২২ বার পড়া হয়েছে

মোঃ সুমন,বিশেষ প্রতিনিধিঃ রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন ও বান্দরবান সদর উপজেলার রাজভিলা ইউনিয়নের সীমান্তে ইসলামপুর এলাকায় গত ৮-১০ দিন ধরে ৭-৮টি বন্য হাতির আতংকে ঘুম হারাম হয়ে পরেছে। দিনে এক জায়গায় চুপ করে বসে থাকলেও সন্ধ্যা নামলেই এক পাড়া থেকে অন্য পাহাড়ে চসে বেড়েছে। এতে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। ১নং ওয়াডের ইউপি সদস্য মোঃ এমদাদুল হক মিলন বলেন গত বৃহস্পতিবার হতে বন্য হাতি গুলো প্রথমে পাইন্দং পাড়া ও বালুমুড়া মারমা পাড়ার মাঝ খানে অবস্থান করছিলো। হঠাৎ করে গত ৮-১০ দিন ধরে বালুমুড়া , শামসুল টিলা,ঝাংকা পাড়া, হাকিমপুর মোড়ে অবস্থান করছে। গভীর রাতে আশ পাশের পাড়ায় এসে গাছ পালা ভাংচুর করেছে বলে জানান। এতে করে এলাকায় দিনমজুর লোকজন কোন কাজকর্ম করতে পারছেনা। রাজভিলা ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য মোঃ বাদশা আলঙ্গীর বলেন গত কয়েকদিন ধরে বন্য হাতির আতংকে পাড়ার লোকজনের ঘুম হারাম হয়ে পরেছে। সন্ধ্যা নামলেই পাড়ার বিভিন্ন স্থানে মোড়ে মোড়ে আগুন জ্বালিয়ে ও আতোষ বাতি ফুটিয়ে রাত কাটাতে হচ্ছে বলে জানান। রাজভিলা রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা বাবুল খীসার সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন ঘঠনা স্থলে বনবিভাগের কর্মচারীদের পাঠানো হয়েছে। যেখানে গিয়ে দেখা যায় বন্য হাতি গুলোর মাঝে ছোট দুই টা বাচ্চা রয়েছে। তাদের বেড় হওয়ার রাস্তা তোকায় পারছেনা।যে দিক দিয়ে বেড় হতে চায় সে দিকে জনগণ বাঁধা দিচ্ছে। তাই হাতি গুলো তারা নোর পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান। তবে হাতি পালিত হাতি হতে পারে বলে মনে করেন।

উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা ইউএনও শান্তনু কুমার দাস বলেন বন্য হাতি গুলো সড়ানোর প্রদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বন বিভাগকে জানানো হয়েছে বলে জানান। বন্য হাতি কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ নুরুল ইসলাম। একসময় উপস্থিত ছিলেন রাজস্থলী রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, ইউপি সদস্য এমদাদুল হক মিলন,রাজভিলা ইউপি সদস্য বাদশা আলঙ্গীর,রাজভিলা রেঞ্জের কর্মচারীগন উপস্থিত ছিলেন। বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ নুরুল ইসলাম বলেন বন্য হাতি সরকারি সম্পদ। প্রাণী গুলো রক্ষা করতে সকলকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন বন্য হাতি দাড়া কেহ ক্ষতিগ্রস্ত হলে সরকারি ভাবে সহযোগিতা করবেন বলে জানান ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© বাংলা নিউজ টেলিভিশন মিডিয়া লিমিটেড-২০২২ (দৈনিক বাংলার সংগ্রাম পত্রিকার একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট