1. info@banglanewstelevision.live : bangla news television : bangla news television
  2. doinikajkerunmocon@gmail.com : Emon Khan : Emon Khan
  3. admin@www.banglanewstelevision.live : বাংলা নিউজ টেলিভিশন :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৩১ অপরাহ্ন

ভুয়া ব্যাংক চালান দেখিয়ে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামির জামিনঃ অতঃপর গ্রেফতার।

প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২০ জুলাই, ২০২২
  • ৩৪ বার পড়া হয়েছে

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

ব্যাংকে টাকা জমার চালান জালিয়াতি করে জয়পুরহাট আদালত থেকে আসামিকে জামিন করার মামলায় আরও একজনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ।

নওগাঁ জেলার সদর উপজেলার দূর্গাপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে এই মামলার আরও দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে একজন জামিনে মুক্ত আছেন।

গ্রেপ্তারকৃত আসামি আলম বাবু মুরাদ ওরফে নসু বাবু (৫২) নওগাঁ জেলার সদর উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

এই মামলার আসামি কালাই উপজেলার পাঁচশিরা গ্রামের আ. করিম (৪৭) গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে রয়েছেন। আরেক আসামি জেলা শহরের সবুজনগর মহল্লার পারুল বেগম (৪২) জামিনে মুক্ত আছেন।

সংশ্লিষ্ট আদালত ও আইনজীবী সমিতি সূত্রে জানা গেছে, দুই ব্যবসায়ী আরমান হাবিব ও সোহেল রানার বিরুদ্ধে আদালতে পৃথকভাবে প্রায় ৬০ লাখ টাকার দুটি চেক জালিয়াতির মামলা করা হয়। আরমান হাবিবের বিরুদ্ধে করা মামলার বাদী শাহ মো. কামরুল হাসান ও সোহেল রানার মামলার বাদী আমানুল্লাহ। সংশ্লিষ্ট আদালত ওই দুই আসামিকে এক বছর করে কারাদণ্ড ও চেকে উল্লিখিত সমপরিমাণ টাকার জরিমানা করেন। তারা কারাগারেও ছিলেন।

গত বছরের ১১ নভেম্বর আইনজীবী রেজাউল করিম আরমান হাবিবের জরিমানার ৩০ লাখের অর্ধেক ১৫ লাখ টাকা জমার সোনালী ব্যাংকের ১০৩ নম্বর চালান অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে জমা দেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ওই দিনই আদালত আরমান হাবিবকে জামিন দিয়েছেন। অপর আসামি সোহেল রানার মামলার সমপরিমাণ জরিমানার ২৮ লাখ ১৬ লাখ টাকার অর্ধেক ১৪ লাখ আট হাজার টাকা সোনালী ব্যাংকের ৮৩ নম্বর চালান দ্বিতীয় যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালতে জমা দেন তার আইনজীবী আনিছুর রহমান। ২৮ নভেম্বর আসামি সোহেল রানা আদালত থেকে জামিন পেয়ে কারাগার থেকে ছাড়া পান।

তবে বাদীপক্ষের আইনজীবীরা চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে চালান মূলে ব্যাংক ও আদালতে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, আদালতে জমা দেওয়া ১০৩ নম্বর ও ৮৩ নম্বর ব্যাংকের চালানে ব্যাংকে কোন টাকা জমা করা হয়নি। এরপর আসামিপক্ষের আইনজীবীরা নিজেদের দায় এড়াতে তৎপর হয়ে ওঠেন। তারা দুই আসামির জামিন বাতিল চেয়ে আবেদন করেন। সংশ্লিষ্ট আদালত ওই আইনজীবীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুই আসামির জামিন আদেশ বাতিল করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

ব্যাংকের চালান জালিয়াতির ঘটনায় সোহেল রানার আইনজীবী অ্যাডভোকেট আনিছুর রহমান বাদী হয়ে গত ১৯ জানুয়ারি জয়পুরহাট সদর থানায় একটি মামলা করেন। ওই মামলায় সোহেল রানার বড় ভাই আব্দুল করিম, তার বোন পারুল বেগম ও আলম বাবু ওরফে নসু বাবুসহ অজ্ঞাত আরও ৩-৪ জনকে আসামি করা হয়।

গত ২৭ জানুয়ারি আদালতে করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০২১ সালের ২৮ নভেম্বর জয়পুরহাট যুগ্ম ও দায়রা জজ আদালত থেকে ১৪ লাখ আট হাজার টাকার ভুয়া চালান দেখিয়ে কারাগারে থাকা দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সোহেল রানাকে জামিন করিয়ে নেন আইনজীবী আনিসুর রহমান। ওই ঘটনায় যুগ্ম দায়রা জজ আদালতের পক্ষে চার জনের বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয় জয়পুরহাট চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে।

জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ আল-মামুন বলেন, মামলার তিন নম্বর আসামি আলম বাবু মুরাদকে নওগাঁ জেলার সদর উপজেলার দূর্গাপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। শরিফুল হক সোহেল, জয়পুরহাট ০১৯১১১৫৫২৬৯

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© বাংলা নিউজ টেলিভিশন মিডিয়া লিমিটেড-২০২২ (দৈনিক বাংলার সংগ্রাম পত্রিকার একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট