1. info@banglanewstelevision.live : bangla news television : bangla news television
  2. doinikajkerunmocon@gmail.com : Emon Khan : Emon Khan
  3. admin@www.banglanewstelevision.live : বাংলা নিউজ টেলিভিশন :
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:২৭ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জ শহরে কোথায়, কখন লোডশেডিং হবে।

প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই, ২০২২
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে

জামাল হোসেন, শায়েস্তাগঞ্জ হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ডিজেলে বিদ্যুৎ উৎপাদন স্থগিত করে এলাকাভিত্তিক লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয়। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠকে সারাদেশে প্রতিদিন এক ঘণ্টা করে লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ‘আমরা এক সপ্তাহ এক ঘণ্টা করে লোডশেডিং দিয়ে পরিস্থিতি দেখবো। এভাবে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া না গেলে পরে দুই ঘণ্টা করে লোডশেডিং দেওয়ার চিন্তাভাবনা রয়েছে’।

এ সিদ্ধান্ত ঘোষনার পরপরই হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবো)’র আওতাধীন হবিগঞ্জ শহর এলাকাগুলোতে লোডশেডিংয়ের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে দিনে ও রাতে নির্ধারিত সময়ে প্রতিটি এলাকায় ৪ থেকে ৫ বার করে লোডশেডিং দেখা দিবে উল্লেখ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার ২য় বারের মত ফিডারওয়ারী লোডশেডিং এর তালিকা প্রকাশ করেছে হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড। ওই তালিকায় পুনরায় প্রতিদিন ৫ বার করে লোডশেডিং হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে দুটি এলাকায় প্রতিদিন ৪ বার করে লোডশেডিং হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, সারাদেশের ন্যায় হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড-এর আওতাধিন শহর ও শহরতলীর নতুন বাস টার্মিনাল, রামপুর, উমেদনগর, শ্যামলী ও রাজনগর ফিডারওয়ারী এলাকায় প্রতিদিন ৫ বার করে লোডশেডিং হবে। তাছাড়া শহরের স্টাফ কোয়ার্টার ও বাইপাস এলাকায় প্রতিদিন ৪ বার করে লোডশেডিং দেখা দিবে। গতকাল প্রকাশ করা তালিকায় বলা হয়েছে, নতুন বাস টার্মিনাল এলাকায় দুপুর ১ টা, সন্ধ্যা ৬ টা, রাত ১০টা, বিকেল ৩ ও সকাল ৮ টায় লোডশেডিং হবে। তাছাড়াও, রামপুরে দুপুর ১টা, সন্ধ্যা ৬ টা, রাত ১০টা, বিকেল ৩টা ও সকাল ৮টা, উমেদনগরে দুপুর ২টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ১১ টা, বিকেল ৪টা ও সকাল ৯টা, শ্যামলী এলাকায় বিকেল ৩টা, রাত ৮, রাত ১২ টা, ভোর ৫ টা ও সকাল ১০টা, রাজনগর এলাকায় দুপুর ১২টা, বিকেল ৫টা, রাত ৯টা, রাত ২টা ও সকাল ৭টায় বিদ্যুৎ থাকবে না। স্টাফ কোয়ার্টার ও বাইপাস এলাকায় বিকেল ৪টা, রাত ১টা, সকাল ৬টা, সকাল ১১টায় বিদ্যুতের লোডশেডিং হবে। তালিকায় আরও বলা হয়েছে, ক’ ফিডারে ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত বিদ্যুতের লোড শেডিং চলবে।

এদিকে, শহর ও আশপাশ এলাকায় প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ বার লোডশেডিংয়ে চরম দূর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। রোদ্রময় তাপদাহে ও ভ্যাপসা গরম থাকায় অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন সাধারণ মানুষ। তাছাড়া বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে রাত ৮টার পর সারাদেশে দোকান, বিপণিবিতান, মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। রাত ৮ টার পর এসব প্রতিষ্ঠান খোলা থাকলে বিদ্যুৎ সংযোগ লাইন বিচ্ছিন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। গতকাল সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিমন্ত্রী এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘রাত ৮টা থেকে কোনোরকম দোকানপাট, শপিংমল, আলোকসজ্জা-সব বন্ধ থাকবে। বিশেষ করে বিদ্যুৎ বিভাগকে বলা হয়েছে, তারা খুব কঠিনভাবে এ বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করবেন। যদি কেউ অমান্য করেন তাদের বিদ্যুতের লাইন আমরা বিচ্ছিন্ন করে দেবো’।

এ সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও অফিসে অপ্রয়োজনীয় এসি এবং আলোকসজ্জ্বা বন্ধ রাখার আহŸান জানান তিনি। সরকারি অফিসের সময় কমানো ও সভা অনলাইনে করার নির্দেশ দেন তিনি। এ ঘোষনার পর থেকেই গতকাল রাত ৮ টায় হবিগঞ্জ শহরের দোকান পাট বন্ধ করে দেন ব্যবসায়ীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© বাংলা নিউজ টেলিভিশন মিডিয়া লিমিটেড-২০২২ (দৈনিক বাংলার সংগ্রাম পত্রিকার একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট