1. info@banglanewstelevision.live : bangla news television : bangla news television
  2. doinikajkerunmocon@gmail.com : Emon Khan : Emon Khan
  3. admin@www.banglanewstelevision.live : বাংলা নিউজ টেলিভিশন :
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

দুর্গাপুরে টাকার বিনিময়ে মিলছে সরকারি পাঠ্য বই।

বাংলা নিউজ টেলিভিশন -
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১২ মার্চ, ২০২২
  • ২৮ বার পড়া হয়েছে

মোঃ নাইম,দুর্গাপুর উপজেলা প্রতিনিধি- রাজশাহীর দুর্গাপুরে আমগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ে টাকার বিনিময়ে বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিতরণের অভিযোগ উঠেছে ।শিক্ষার্থীরা বলছে টাকা না দিলে মিলছে না বই। নয়টি বই ফ্রি দিলেও পাঁচটির জন্য নিচ্ছেন পাঁচশত টাকা। এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।প্রতিবছর ১ জানুয়ারি বই উৎসব হয়ে থাকে। এবছর করোনাভাইরাসের কারণে উৎসব না হলেও যথাসময়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। বিতরণের ১০ দিন পূর্বে ৯০ শতাংশ পাঠ্যবই নির্দিষ্ট বিদ্যালয়ে পৌঁছে যায়। এবারের শিক্ষাবর্ষে ৪ কোটি ১৭ লাখ ২৬ হাজার ৮৫৬ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৩৪ কোটি ৭০ লাখ ২২ হাজার ১৩০ কপি পাঠ্যপুস্তক বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে।সরকারের এমন সুন্দর উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন সকল শ্রেণী পেশার মানুষ। তবে কিছু অসাধু ব্যক্তির জন্য বঞ্চিত হচ্ছে অনেক শিক্ষার্থী।অভিভাবক ও শিক্ষার্থী সূত্রে জানাযায়, আমগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম ও দশম শ্রেণির শতাধিক শিক্ষার্থীদের থেকে বিভাগ ভেদে ৫টি বিষয়ের জন্য ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ৯টি বই বিনামূল্যে সরবরাহ করা হচ্ছে কিন্তু বাকিগুলো আটকিয়ে রেখছে কর্তৃপক্ষ। নির্ধারিত টাকা দিলেই মিলছে কাঙ্খিত বই অথচ কোনো প্রকার আদায় রশিদ প্রদান করা হচ্ছে না ।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী জানান, আমরা স্কুলের বেতন, সেশন চার্জ, অন্যান্য ফি সম্পূর্ণ পরিষদ করলেও বাড়তি ৫০০ টাকা ছাড়া আমাদের বই সরবরাহ করা হয়না। এই বাড়তি টাকার কোনোরূপ রশিদ আমাদের প্রদান করা হয়না। সবকিছুই চলে আমাদের প্রধান শিক্ষক তসলেম স্যারের নেতৃত্বে। তার ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করেনা। তিনি স্কুলে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন এই আশঙ্কায়।এবিষয়ে আমগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ তসলেম উদ্দিন জানান, বই নির্ধারিত সময়ে দেওয়া হয়েছে। সেশন চার্জ হিসেবে ৫০০ টাকা নেওয়া হয়েছে। অনেকের এখন পর্যন্ত টাকা দেয়নি কিন্তু তাদের ও বই দেওয়া হয়েছে।উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাহিদুল হক জানান,বই দিয়ে টাকা নেওয়া প্রশ্ন-ই আসে না। কেউ নিলে প্রমাণ সহ অভিযোগ করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© বাংলা নিউজ টেলিভিশন মিডিয়া লিমিটেড-২০২২ (দৈনিক বাংলার সংগ্রাম পত্রিকার একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট